আমরা ডুপনো|সলিডট্র্যাক

আমরা ডুপনো|সলিডট্র্যাক। বাংলাদেশের একটি নির্ভরযোগ্য জিপিএস ট্র্যাকিং স্টার্টাপ।


আমাদের সময়োপযোগী ও সর্বচ্চো হালনাগাদ সফটওয়্যার এবং শক্তিশালী লং লাস্টিং ডিভাইস এর মাধ্যমে যেকোনো ধরনের ট্র্যাকিং সার্ভিস দিয়ে থাকি।

বাজারে ২ ধরনের জিপিএস ডিভাইস পাবেন একটি হলো পুরাতন প্রজম্নের নিম্ন মানের ম্যানুয়াল জিপিএস যেখানে আপনি শুধু SMS এর মাধ্যমে দেখতে পারবেন একটি লিংক পাবেন লকেশন দেখার জন্য যা অনেকটা শখের করাতের মত   ২ ভাবে  আপনার খরচ বাড়াবে আপনার SMS এর জন্য।

অন্যটি হলো স্মার্ট জিপিএস,LBS, এন্ড wifi ডিভাইস যার জন্য আপনাকে কোনো অযথা খরচ করতে হবে না সরাসরি এপ্লিকেশনের মাধ্যমে রিয়েল টাইম গতিবিধি দেখতে পারবেন সাথে পাবেন পাস্ট ট্রাভেল হিস্ট্রি দেখার সুবিধা। আর স্মার্ট জিপিএস ২ ভাবে ট্রাকিং সুবিধা দিয়ে থাকে sms এবং সব ধরনের ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে। এছাড়াও স্মার্ট জিপিএস ডিভাইসে থাকে নান রকম সেন্সর যা দিয়ে আপনার সম্পদের নানা বিধ সুরক্ষা দিয়ে থাকে।

ট্র্যাকিং এখন শুধুমাত্র অনুসরণ করার জন্য করা হয়না বর্তমানে এর ব্যবহার অনেক বেপক ও বিস্তৃত। এটি নিরাপত্তার একটি স্মার্ট পণ্য যা আপনার পরিপূর্ণ নিয়ন্ত্রণ এনে দিবে।


কোম্পানির জন্য ব্যবহারের ক্ষেত্র


ফিল্ড ফোর্স মনিটর  অথবা ডেলিভারির

যে কোন কোম্পানি তাদের ফিল্ড ফোর্স কে মনিটর করার জন্যা ব্যবহার করতে পারবে। ধরুন আপনার একটি ডেলিভারি কোম্পানি আছে, আপনি জানতে চান আপনার ডেলিভারীম্যান এই সময়ে ঠিক কোন জায়গায় আছে। তাছাড়া আপনি চাইলে আপনার কাস্টমারের ট্রাস্ট ও স্যাটিসফ্যাক্টিনের জন্য আপনার ডেলিভারিম্যানের লোকেশন শেয়ার করতে পারবেন ।যার মাধ্যমে আপনার কাস্টমারের সময় বেচে যাবে ও সন্তুষ্টি বাড়বে।

আবার হতে পারে, আপনার কোম্পানিতে মার্কেটিং এর প্রচুর লোক কাজ করে যারা বাইরে বিভিন্ন জায়গায় মার্কেটিং ক্যাম্পেইন করে। তাদের ক্ষেত্রেও ঠিক একিভাবে আপনার জানা দরকার তারা ঠিকভাবে কাজ টি সম্পন্ন করছে কি না। ঠিক ভাবে কাজ টি করছে কি না।

তাছাড়া আমাদের সফটওয়্যারে ট্রাভেল হিস্ট্রি ব্যাকআপ থাকার কারণে পরবর্তিতে যেকোনো ঝামেলা এড়াতে স্ট্রং প্রমান হিসাবে কাজ করবে।


 ভেহিকেল ট্র্যাকিং


যে কোনো কোম্পানি তাদের গাড়ির হাড়ির খবর জানতে আমাদের ভেহিকেল ট্র্যাকিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারবে।

গাড়ি বা মোটরসাইকেলের চুরি/হারানো প্রতিরোধ এর জন্য ট্র্যাকিং ডিভাইস। যার মাধ্যমে গাড়ি বা মোটরসাইকেলের অবস্থান এখন সরাসরি ঘরে বসেই গুগল ম্যাপে দেখে নিতে পারবেন। শুধু তাই নয়, আপনার গাড়ি বা মোটরসাইকেল যে রাস্তায়, যেখানেই আছে, সেই রাস্তাও সরাসরি ৩৬০ ডিগ্রি আকারে দেখতে পারবেন। গাড়ি বা মটরসাইকেলের ইঞ্জিন অন করা মাত্র আপনার মোবাইলে মেসেজ ও কল চলে আসবে। ব্যাটারি থেকে ডিভাইস খুলে ফেললেও মেসেজ আসবে আপনার মোবাইলে। তখন ডিভাইসের ব্যাটারির সাহায্যের আপনি লোকেশন পাবেন। চাইলে আপনার গাড়ি কত কিলোমিটার পূর্বে চলেছে এবং কোন কোন রাস্তা দিয়ে চলেছে সেটাও ম্যাপে দেখে নিতে পারবেন। গাড়ির ইঞ্জিন অন না অফ আছে সেটা দেখতে পারবেন। চলন্ত অবস্থায় কোন কোন রাস্তা দিয়ে চলছে সেটাও ম্যাপে দেখে নিতে পারবেন। এছাড়াও অনকে ধরনের রিপোর্ট ও এনালাইসিস।

গাড়ী কোন রাস্তা দিয়ে যাচ্ছে
• গাড়ীর গতিবেগ কত
• বর্তমানে আপনার গাড়ীটি কোথায় আছে
• গাড়ীটি কতটুকু দূরত্ব অতিক্রম করছে
• গাড়ীটি কোন জায়গা থেকে কোন জায়গায় যাচ্ছে
• গাড়ীর ভিতর কে বা কারা অবস্থান করছে
• গাড়িতে কি কথোপকথন হচ্ছে
• পৃথিবীর যে কোন জায়গা থেকে গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ করে দিতে পারবেন
• গাড়ির ইঞ্জিন অন করা মাত্র আপনার মোবাইলে মেসেজ ও কল চলে আসবে
• গাড়ির ইঞ্জিন অন না অফ আছে সেটা দেখতে পারবেন
• লাইফটাইম  গ্যারান্টি ও ২৪ ঘণ্টা কাস্টমার সার্ভিস।
• গ্রাহক এর চাহিদা অনুযায়ী Report


বাক্তি জীবনে ট্রাকার


বাক্তি জীবনে ট্রাকারের ব্যবহার করার অনকে প্রয়োজনীতা আছে বিশেষ করে আপনার আদরের শিশু সন্তান এবং এবং বাসার বৃদ্ধবাক্তির জন্য।

আমাদের মিনি ডিভাইস আপনার সন্তানের স্কুল ব্যাগে রেখে দিয়ে আপনার সন্তানের লকেশোন জানতে পারবেন সাথে সাথে কি কথা বলছে সেটাও শুনতে পারবেন। তাই আদরের সন্তানের সর্বদা চোখের নজরে রাখতে স্মার্ট qbit মিনি ডিভাইস সাথে দিয়ে দিন।

আবার হতে পারে আপনার বাসার প্রবীন বা বৃদ্ধবাক্তি যিনি বয়সের ভারে এখন নুতিয়ে পড়েছেন বিছানা থেকে উঠা অসম্ভব অথবা কঠিন রোগে আক্রান্ত বাক্তি যিনি আছেন সম্পূর্ণ বেড রেস্টে সব ধরনের মুভমেন্ট এর জন্য দরকার অন্য কারো সাহায্য তাদের জন্য এখন আছে স্মার্ট Qbit ডিভাইস।

আর তাই এখন সর্বদা ভিকটিমের সাথে না থেকেও অন্য কাজ করতে পারবেন কারণ ভিকটিমের যেকোনো প্রয়োজনে আপনি পেয়ে যাবেন হেল্প আলার্ট। এমন কি কোনো মোবাইল ডায়াল ছাড়া এক ক্লিকে ডাইরেক্ট কথা বলতে পারবেন। সাথে আছে গতিপথ দেখার ও শেয়ার করার অনন্য সুবিধা।

তাছাড়া ভিকটিম যদি বেড অথবা যেকোনো জায়গা থেকে পড়ে যায় তাহলে আপনি অটোমেটিক পেয়ে যাবেন হেল্প আলার্ট।

এমন কি আপনার রুমে রাতে অন্যকারো যদি কোনো ধরনের বড় মুভমেন্ট থাকে তাহলে অটোমেটিক আপনার ফোনের রিং টোন বেজে উঠবে।

Comments

comments

Related Posts